কৃষ্ণজিৎ-এর কলাম ৩ : নদী

নদীমাতৃক এই বাংলাদেশের জলপথে আবহমানকাল ধরে কতরকমের জলযান যে চলেছে তার হিসেব আমরা রাখিনি। কিন্তু আজ থেকে বহুবছর আগে এক ফ্লেমিশ-চিত্রশিল্পী বালথাজার সলভিন্স ভারতে এসে তাঁর সুনিবিড় পর্যবেক্ষণে এদেশের মানুষের জীবনযাপন সহ অসংখ্য জিনিসের চিত্রনথি তৈরি করে গেছেন। তারই মধ্যে উল্লেখযোগ্য হল বাংলার বিভিন্নরকমের নৌকোর ছবি ও তাদের বিবরণ। তিনি কলকাতায় ছিলেন তেরোবছর (১৭৯১-১৮০৩), এই সময়কালে সলভিন্সের আঁকা ছত্রিশটি নৌকোর ছবি (সবগুলোই ধাতব প্লেটে খোদাই করে এঁকে তারপর কাগজের ওপর ছাপ তোলা, যাকে বলে এচিং) সেযুগের বাংলার নদীনির্ভর জীবনের এক অনন্য দলিল। একসঙ্গে এতগুলি নৌকোর ছবি এঁকে ও তাদের প্রত্যেকের পরিচয় লিপিবদ্ধ করে শিল্পী একটি অসামান্য কাজ করে গেছেন। Boats of Bengal নামে একটি বইয়ে বালথাজার সলভিন্সের এই নৌকো-সিরিজটির পূর্ণাঙ্গ পরিচয় পাওয়া যায়। এই বইটির প্রকাশক Manohar Publishers । উৎসাহীরা দেখতে পারেন। আমি শুধু কয়েকটা ছবি ও প্রচ্ছদের ছবি দেখাচ্ছি কৌতূহল উসকে দেবার জন্য।

নৌকো নিয়ে আরেকটি চমৎকার বই। তবে এ বই বাংলায় লেখা, লেখকও বাঙালি। তিনি বালথাজার সলভিন্সের মতো নানারকম নৌকোর ছবি আঁকেননি বটে, তবে তিনি নৌকোর ওপর প্রচুর তথ্য ও ইতিহাস উদ্ধার করেছেন।
আজ থেকে অন্তত বারোহাজার বছর আগে মানুষ প্রথম জলে ভেলা ভাসিয়েছিল। কালক্রমে কতরকমের জলযান তৈরি হয়েছে দেশে-দেশে। মানুষ নৌকো চেপে মাছ ধরেছে, বাণিজ্য করতে ভিনরাজ‍্যে গেছে, এমনকি যুদ্ধ ও লুটতরাজও করেছে কত। নৌকোর ব্যবহার তাই বিচিত্রপথে। প্রয়োজন ভেদে নৌকোর আকৃতি ও প্রকৃতিও কতরকমের। সেইসব নিয়ে হাজার কথা গেঁথে যিনি এই বইটি লিখেছেন তিনি স্বয়ং একজন জাহাজ নির্মাতা, ভারত সরকারের গার্ডেনরিচ শিপবিল্ডার্সের প্রযুক্তিবিদ। তাঁরই কলমে জানা গেল নৌকোর পাল, হাল, পাটাতন, নোঙর, মাঝিমাল্লাদের নানা আখ‍্যান। তারই সঙ্গে উৎসবে, মেলায়, সাহিত্যে, সংস্কৃতিতে, লোকাচারে নৌকো নিয়েও কত কথা। বালথাজার সলভিন্সের Boats Of Bengal-এর সঙ্গে দেবব্রত মল্লিকের নৌকা (পারুল প্রকাশনী) একযোগে পড়লে নিজেকে বেশ একটা নৌকোবিদ বলে মনে হয়।

This entry was posted in Cultural journey and tagged , , , . Bookmark the permalink.

মন্তব্য করুন

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out /  পরিবর্তন )

Google photo

You are commenting using your Google account. Log Out /  পরিবর্তন )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out /  পরিবর্তন )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out /  পরিবর্তন )

Connecting to %s

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.